আওয়ামী সরকার নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে সাহস পায় না-মির্জা ফখরুল


মোঃ আকতার হোসেন, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন- সারাদেশের মানুষ জানে আমি যেহেতু গণতন্ত্রের কথা বলি তাই আমাকে মিথ্যা মামলা দিয়ে আটক করে রাখা হয়েছিল। আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মামলা দিয়ে কারাগারে আটক করে রাখা হয়েছে। আমাদের নেতাকর্মীদের ওপরে হামলা-মামলা, গায়েবী মামলা দিয়ে হয়রানী করা হচ্ছে। তারপরেও সরকার নির্বাচন করতে সাহস পায় না। আওয়ামীলীগ সরকার নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে সাহস পায় না। ওদের পুলিশ, প্রশাসন, নির্বাচন কমিশন, বিচার বিভাগকে তাদের পক্ষে থাকতে হবে। নির্বাচন কমিশন ঠুনকো জগনাথ। আমরা জানতাম এ সরকার যদি ক্ষমতায় থাকে তাহলে কখনও সুষ্ঠু নির্বাচন হবে না। তারপরেও আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছি।


গতকাল ২২ ডিসেম্বর শনিবার দুপুরে চিরিরবন্দর উপজেলার কেন্দ্রিয় ঈদগাহ মাঠে নির্বাচনী পথসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, আসন্ন একাদশ জাতীয় নির্বাচনে ধানের শীষের প্রার্থীকে জয়ী করে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত ও সিনিয়র ভাইস্ চেয়ারম্যান তারেক রহমানের দেশে ফেরা নিশ্চিত করতে ধানের শীষে ঐক্যবদ্ধভাবে ভোট দিতে হবে।


উপজেলা বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব মজিবর রহমান শাহ্র সভাপতিত্বে বিএনপি মহাসচিব নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের নিন্দা জানিয়ে বলেন, যতই হামলা-মামলা, নির্যাতন-নিপীড়ন করুক না কেন কোন লাভ হবে। আগামী ৩০ ডিসেম্বর মানুষ ধানের শীষে ভোট দিয়ে তাদের অধিকার ফিরিয়ে আনবে। তিনি আরো বলেন, সরকার ১০ বছরে ব্যাপক উন্নয়ন করেছে বললেও প্রকৃত পক্ষে তাদের পেটের উন্নয়ন করেছে। আর আমাদের সাধারণ মানুষের পকেট কেটেছে।


সভায় দিনাজপুর-৪ (চিরিরবন্দর-খানসামা) আসনের বিএনপি মনোনীত প্রার্থী বিএনপির কেন্দ্রিয় নির্বাহী কমিটির সদস্য উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি আলহাজ্ব মো. আখতারুজ্জামান মিয়া, সাবেক সংসদ সদস্য রেজিনা ইসলাম প্রমূখ বক্তব্য রাখেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!